If you depend too much on a living person for your motivation and happiness, at times the same person may become the reason of your unhappiness and distractions


Share Button

Share Button

Share Button

নব বর্ষ
হর্ষ চিত্তে তোমারে করি বরণ,
এসো অনেক আলো নিয়ে
করো গো মোদের আশা পূরণ৷
Share Button
Let’s tell the truths and face the reality. We have had enough of hypocrisy and compromisations without any noble cause. Our society have taught us to act throughout our life in the name of religion, post-death myths etc. A very few of us can actually break the artificial guarded wall and breathe the air of freedom, comfort and happiness.

We can’t suddenly change our society. It takes centuries for transformation. The maximum we can do now is start a few new habits for betterment. Learn from the mistakes and change our habits a bit again. This continuous process may someday lead us to make our world better. To start with, we must understand our current situation, take certain measures and then again evaluate the situation. This cyclic process continues forever.

Now the question is – do we have such a universal authority to provide us true reflection of society?

Here, I am going to talk about a social platform to enable people to speak their heart without fear. It provides essence of freedom and openness. On contrary, in Facebook, Twitter etc. social networks individuals are accountable for whatever they say.

Everything in the system will be kept anonymous and would be published categorically along with growth index:

  • location based
  • country based
  • topic based
  • emotion based
  • opinion based

Irrespective of whether or not author of an opinion will be tracked ever in the system (ideally should not be tracked), it’ll give immense power to people to speak without fear.

This system would bring out actual thoughts in peoples mind. I believe no authority provides such kind of facility today. In this system you can speak anything and everything you want. You can give any opinion on any topic you want. neither you’ll be judged nor you’ll be questioned.

Now whether or not a person is speaking his heart and telling truth can not be determined (verification). I am not aiming for that. However, this may become a major problem in maintaining governance and harmony, as some people may start misusing the platform for their gain, spread hatreds, cause communal riots etc.

Share Button
What makes us smile,
What makes us cry?
What makes us brave,
What makes us shy?

What makes us greedy,
What makes us honest?
What makes us hostile,
What makes us modest?

What makes us fight,
What makes us friends?
What makes us crazy,
What makes us tense?

What makes us born,
What makes us die?
What makes us live,
What makes us kill?

Share Button
Typical Indian mentality!!! “Until I am the victim everything is alright. Even if people in my city/state/country are dying due to poverty, natural disasters or killed in terrorist attacks it does not make much difference to me.” Majority of Indian people still think this way.

Our politicians are one step ahead. Being Indian they have ‘does-not-make-much-differ​ence’ attitude and as ‘nonsense’ leader instead of taking responsibility for disasters they shamelessly defend their ‘party’ and the government.

Share Button
একজন মানুষ যা দেখায় সেটা তাঁর পরিচয় নয়; যেটা গোপন রাখার চেষ্টা করে সেটাই তাঁর মনুষ্যত্বের আসল পরিচয়।

এক একজন মানুষ একই সঙ্গে অনেক character play করে। কখনো স্বার্থের জন্য, আবার কখনো বাঁচার জন্য জীবনের রঙ্গমঞ্চে বিভিন্ন ধরনের acting করে চলে। পৃথিবীর মানুষের সামনে এক, আপনজনদের কাছে আর এক এবং নিজের কাছে অন্য আর এক পরিচয়।

যে সমস্ত মানুষ শুধুমাত্র একটি identity নিয়ে চলতে পারে তারা সত্যিই সৎ মানুষদের এবং ভগবানের প্রিয় পাত্র হয়।

Share Button
জীবন কখনো থেমে থাকে না। মানুষের জীবনের প্রবাহ নদীর স্রোতের মতো। সুখ-দুঃখ, ভাঙ্গা-গড়া সব কিছুকে নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে চলা।

জগতের সমস্ত মানুষ, পশু-পাখি, কীট-পতঙ্গ ইত্যাদি, যাদের মধ্যে প্রাণ আছে, তারা বাঁচতে চায়। বাঁচার জন্য খাদ্য চায়। একটু সুখ চায়। কেউ শেষ হয়ে যেতে চায় না। ফুরিয়ে যেতে চায় না। নিজেকে প্রমাণ করতে চায় প্রতিটি মুহুর্তে নামের জন্য, যশ-খ্যাতি-অর্থের জন্য। বাকীদের থেকে আরও উপরে ওঠার জন্য। কিন্তু একদিন সব শেষ হয়ে যায়, অন্তহীন চাওয়া-পাওয়ার অবসান ঘটে; জীবন স্তব্ধ হয়ে যায়। তারপর?

তারপর কী হয় কেউ জানে না। যদিও অনেক মতামত আছে এ নিয়ে, তবে সবটাই কল্পনা।

জীবনের দৌড়ে সবাই প্রথম হতে চায়। কেউ জানেনা এই দৌড়ের শেষ কোথায় এবং সার্থকতা কী; তা সত্বেও অনবরত ছুটে চলেছে সবাই।

একজন মানুষের জন্মাবার পর থেকে মৃত্যু পর্যন্ত সমস্ত উপলব্ধিগুলোর সমষ্টি হলো তাঁর জীবনের চরম সত্যি। এ সত্যি বাকি পৃথিবীর কাছে মূল্যহীন হলেও ধাপে ধাপে সেই মানুষটির বোধ, ধারণা এবং চেতনার বিকাশে প্রধান ভূমিকা নেয়। উপলব্ধিহীন জীবন অর্থহীন।

Share Button
Life is a game of brain, mind and time. At different times brain and mind work in different ways.

We regret because our observation and understanding change with time on the same object.

Share Button